রবিবার, ১৯ মে, ২০২৪

সাকিব ছাড়াও মাগুরা-১ ও ২ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী ২৫ জন


সাকিব ছাড়াও মাগুরা-১ ও ২ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী ২৫ জন

সাকিব আল হাসান | ছবি: সংগৃহীত

  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন

মাগুরা-১ ও ২ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনে স্থানীয় রাজনীতিতে আলোচনার জন্ম দিয়েছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। এই দুই আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শিখর (মাগুরা–১) ও সাবেক যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদারও (মাগুরা–২) নৌকার মনোনয়নপ্রত্যাশী। এছাড়াও মাগুরা-১ থেকে ১০ জন এবং মাগুরা–২ আসন থেকে ১৬ জন প্রাথী আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। 

মাগুরা–১, একটি পৌরসভা, সদর উপজেলার ৯ ইউনিয়ন ও শ্রীপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত। বর্তমান সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শিখর ও সাকিব আল হাসান ছাড়াও মনোনয়ন কিনেছেন সাবেক সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা এ টি এম আবদুল ওয়াহাব, রাশিয়া শাখা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এম শফিকুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রানা আমির ওসমান, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. মিরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ইসমত আরা হ্যাপি, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পঙ্কজ কুমার সাহা, শ্রীপুর উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি কুতুবুল্লাহ হোসেন মিয়া ও আবদুল্লাহ খান রনি।

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের বাড়ি মাগুরা শহরের সাহা পাড়ায়। এটা মাগুরা–১ আসনের মধ্যে। তবে  তিনি মাগুরা ২ আসন থেকেও মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন। সদর উপজেলার চার ইউনিয়ন, মহম্মদপুর ও শালিখা উপজেলা নিয়ে গঠিত মাগুরা–২ আসন। এই আসন থেকে চারবার নির্বাচিত বর্তমান সংসদ সদস্য বীরেন শিকদারও মনোনয়নপ্রত্যাশী। এ ছাড়া জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মো. নুরুজ্জামান, সদস্য মো. কবিরুজ্জামান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওহিদুর রহমান, সহসভাপতি শফিকুজ্জামান বাচ্চু, শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক কাজী শরিফ উদ্দিন, সদস্য মো. সৈকতুজ্জামান, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য নির্মল কুমার চ্যাটার্জি, বন ও পরিবেশ উপকমিটির সদস্য শেখ নবিব আলী, আন্তর্জাতিক–বিষয়ক উপকমিটির সদস্য শাহিদুল হাসান, মাল্টা শাখা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মশিয়ার রহমান, মো. আবু আয়ুব বিশ্বাস, মো. ফয়জুর রহমান চৌধুরী, এ ডি এম আব্বাস আল কোরেশী ও মঞ্জুরুল হাসান।

অন্যদিকে জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শফিকুজ্জামান মাগুরা–১ আসনের সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামানের ভাই। তাঁদের বাবা মো. আছাদুজ্জামান দীর্ঘদিন মাগুরা–২ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন। ১৯৯৪ সালে আছাদুজ্জামানের মৃত্যুর পর উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হন শফিকুজ্জামান। 
 

  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন