শনিবার, ১৮ মে, ২০২৪

ঘুমানোর আগে ত্বকের যত্ন নিতে যা যা করবেন


১২ নভেম্বর ২০২৩, ১০:১৭ অপরাহ্ণ 

ঘুমানোর আগে ত্বকের যত্ন নিতে যা যা করবেন

ত্বকের যত্ন | ছবি: প্রতীকী

  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন

ত্বকের যত্ন- কর্মময় ব্যস্ত জীবনে অনেকেই পরিপাটি থাকতে পছন্দ করেন। খাবার দাবার কিংবা সাজসজ্জা সব কিছুতেই পছন্দ-অপছন্দের একটা ব্যাপার থাকে। আর এসব কিছুর জন্য সবচেয়ে জরুরি হল মনের প্রশান্তি কিন্তু আপনি কি জানেন? মনের এই প্রশান্তি কোথা থেকে আসে। মানুষের দেহ ও মনের শান্তি আসে ভালো ঘুম থেকে। সঠিক সময়ে পর্যাপ্ত ঘুম ত্বকের জন্যও খুব ভালো। ঘুমের আগে কিছু নিয়ম মানলে ত্বক হবে আরো সতেজ ও দীপ্তিময়। ত্বক ভালো রাখতে নিয়মিত ভাবে নিচের পদ্ধতি গুলো মেনে চলুন।

                                     (০০) ত্বকের যত্ন নিবেন যে যে উপায়েঃ   

(১) ঘুমানোর আগে ভালোভাবে মুখ ধোয়াঃ এই ছোট্ট অভ্যাস আপনার ত্বককে অবাঞ্ছিত নানা সমস্যা থেকে দূরে রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। রাতে নিয়মিত মুখ ধোয়ার কারণে ব্রণ, ব্ল্যাকহেডস, অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব দূর হয়। সারা দিনের ধুলাবালি থেকেও সুরক্ষা দেয়। মুখ ধোয়ার পর রাতের প্রসাধনী সহজে ত্বক শুষে নেয়। এতে দ্রুত কার্যকর ফল পাওয়া যায়। সকালে ঘুম থেকে উঠার পর ত্বকে দীপ্তিময় আভা খেলা করে। সারা দিনের কর্মব্যস্ততার পর রাতে শোয়ার আগে এই ছোট্ট অভ্যাসিটই ত্বকের জন্য হতে পারে সব সমস্যার সেরা সমাধান।

(২) মুখে মেকআপ থাকলেঃ বাইরে থেকে বাড়ি ফিরে দেরী না করে তা তুলে ফেলা। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে নানা রকম আচার অনুষ্ঠানে যেতে হয়। বিয়ে, বউভাত, জন্মদিন, ঘোরাঘুরিসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের সাজসজ্জায় মেকআপ করতেই হয়। কেউ হালকা কেউবা ভারী মেকআপ নেন। সময়টাই এমন যে মেকআপ ছাড়া সাজ যেন জমে না। মেকআপের কারণে ত্বকের ওপর বিভিন্ন প্রসাধনীর প্রলেপ পড়ে। এতে ত্বকের লোপকূপের মুখ বন্ধ হয়ে যায়। আর এতে করে ত্বকের অনেক ক্ষতি হয়। এমনকি দীর্ঘ সময় মেকআপ নিয়ে থাকলে ত্বক হাঁপিয়ে ওঠে। ত্বকে বিভিন্ন সমস্যাও দেখা দিতে পারে। মনে রাখবেন ঘুমের আগে অবশ্যই মেকআপ তুলে ফেলতে হবে।

(৩) বিশ্রামের জন্য পূর্ব প্রস্তুতি গ্রহনঃ আমাদের ত্বকের সঙ্গে দিন ও রাতের দারুণ সম্পর্ক রয়েছে। বিশেষ করে দিনে সূর্যের আলো, বাইরের ধুলাবালি, রোদ-বৃষ্টি, পারিপার্শ্বিক নানা চাপ মোকাবেলা করতে হয়। এতে শরীর ও মনের সঙ্গে আমাদের ত্বকও হাঁপিয়ে ওঠে। ত্বকে ক্লান্তি চেপে বসে। রাতে এসব ধকল বিশ্রামের মাধ্যমে পুষিয়ে নেয় ত্বক। সুন্দর ঘুম ও বিশ্রামের কারণে আবার সজীব ও প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে সকালে। এ জন্য রাতে দ্রুত ঘুমানোর প্রস্তুতি নিতে হবে। অনেকের রাত্রি জেগে মোবাইলে চ্যাঁটিং কিংবা গেইমস খেলার অভ্যাস থাকতে পারে। কিন্তু মনে রাখতে হবে মোবাইলের নীল আলো চোখের নিচে ডার্ক সার্কেল ও ত্বকের ক্ষতি করে।

(৪) ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারঃ অনেকেই রাতে কোনো ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করেন না। এতে ত্বক আরো শুষ্ক ও রুক্ষ হয়ে ওঠে। মুখ ধোয়ার পর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারে এটা ত্বকের সঙ্গে আরো ভালোভাবে মিশে যায়। ত্বকের শুষ্কতা দ্রুত দূর করে।

(৫) নিয়মিত নাইট ক্রিম ব্যবহারঃ দিনে ত্বককে পরিবেশের নানা প্রতিকূলতা থেকে সুরক্ষার জন্য সানস্ক্রিন, ভিটামিন 'সি' র মতো উপকরণ দরকার হয়। তেমনি রাতেও ত্বকের বিশ্রামের সময় দিতে পারেন নাইট ক্রিম। এসব উপাদান সারা দিনের ধকল কাটিয়ে পুনরায় ত্বক সতেজ হয়ে উঠতে সাহায্য করে।

(৬) বালিশ কভার ও বিছানা ব্যাবহারে সতর্কতাঃ বালিশ কভার ও বিছানা ব্যাবহারে সতর্কতা মেনে চলা। কেননা নোংরা বালিশ কভার ও বিছানার চাদরে ঘুমালে ত্বকের বারোটা বাজতে বাধ্য। নিয়মিত একই বালিশে ঘুমানোর কারণে কভারে তেল জমে, কালো ও তেলচিটে হয়ে যায়। ঘুমানোর সময় ঘাম ও তেলের সংস্পর্শে ত্বকে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ হওয়াটা অস্বাভাবিক নয়। এতে ত্বকে র‌্যাশ, ব্রণ, ফুসকুড়ি, চুলকানিসহ নানা সমস্যা হতে পারে। এ জন্য প্রতিদিন রাতে পরিষ্কার ও শুকনা বালিশ কভারে ঘুমাতে হবে।

পরিশেষে বলতে চাই,ত্বক ভালো রাখতে নিজেকে অবশ্যই অনেক সচেতন থাকতে হবে। কেননা আপনার দৈনন্দিন রুপচর্চার রুটিন আপনারই ভালো জানা আছে, তাই সে ভাবেই ত্বককে যত্ন নিন। পরিমান মতো পানি পান করুন।

  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন