মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪

সর্বাধিক পঠিত


চুরির ১০ বছর পর টাকা ফেরত, ক্ষমা চেয়ে চিঠি


চুরির ১০ বছর পর টাকা ফেরত, ক্ষমা চেয়ে চিঠি
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন

মানুষ কথায় বলে, ' চোর কখনো সাধু হয় না ' কিন্তু না? এবার এক চোর সেই উক্তিটিকে পরাস্ত করে গোটা জাতিকে তাক লাগিয়ে দিলো। ফরিদপুরের মধুখালীতে এক ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান থেকে চুরি করার ১০ বছর পর টাকা ফেরত দিয়ে গেছে এক চোর। চুরির টাকাসহ সেখানে ক্ষমা চেয়ে একটি চিঠিও রেখে গেছে। চিঠিতে তাকে ক্ষমা করে দেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। আজ বুধবার (১ নভেম্বর) সকালে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, মধুখালী উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের বাঙ্গাবাড়িয়া বাজারের পোল্ট্রি ব্যবসায়ী কাইয়ুম মৌলিক। তিনি দীর্ঘদিন বাজারে ব্যবসা করছেন। অন‌্যদি‌নের মতো বুধবার সকালে দোকান খুলতে গিয়ে দোকানের সামনে একটি খাম পান। খাম খু‌লে তিন হাজার টাকা ও একটি চিঠি দেখতে পান।

চিঠিতে লেখা, আমি প্রায় ১০ বছর আগে আপনার দোকান থেকে ২০০০, ২৫০০, ৩০০০, ৪০০০ বা এর চেয়ে কমবেশি হতে পারে, টাকা চুরি করেছিলাম। টাকার পরিমাণ আমার সঠিক মনে নেই। শয়তানের প্ররোচনায় বা অভাবের কারণে হোক চুরি করেছিলাম। আমি এখন ভুল স্বীকার করছি।

যেহেতু আপনি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ কালাম পড়েন, আপনি অবশ্যই জানেন যে আল্লাহ তাকে ক্ষমা করেন যে অন্যকে ক্ষমা করেন। আপনাকে সামান্য টাকাটা দিয়ে আমি আপনার কাছে ক্ষমা চাচ্ছি। জানি এই সামান্য টাকা আপনার কিছুই হবে না। তাও এই টাকাটা গ্রহণ করে আমাকে আল্লাহর ওয়াস্তে মাফ করে দিন। এই আশায় আপনাকে তিন হাজার টাকা পাঠালাম। দয়া করে এটি নিয়ে আমাকে ক্ষমা করে দিন।

সকালে দোকান খুলতে গি‌য়ে শাটারের পাশে একটা খাম পড়ে থাকতে দেখে ব্যবসায়ী কাইয়ুম মৌলিক। তিনি বলেন, খামটি খুলে দেখি এর মধ্যে একটি চিটি ও তিন হাজার টাকা। আসলে এই মহান ব্যক্তিকে আমি মন থেকে দোয়া করি সে যেন সুখে থাকে। আমি তাকে মাফ করে দিয়েছি। আল্লাহ যেন তাকে মাফ করে দেন।

 

  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন