শনিবার, ১৮ মে, ২০২৪

কলকাতায় ঢাকাই তারকাদের অভিনয় দাপট


৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ৭:৩০ অপরাহ্ণ 

কলকাতায় ঢাকাই তারকাদের অভিনয় দাপট
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন

এপার বাংলা ও ওপার বাংলার তারকারা একসাথে কাজ করছেন এমন চল শুরু হয়েছে প্রায় এক দশক ধরেই। তবে দুয়েক বছর ধরে এই চিত্রের অনেকটাই পরিবর্তন এসেছে। এখন বাংলাদেশের তারকারাই বেশি সরব হয়ে পড়েছেন ওপার বাংলার চলচ্চিত্রে। বাংলাদেশি তারকাদের কেউ কেউ অনেক আগেই থিতু হয়েছেন কলকাতার সিনেমায়। সেখানকার সিনেমায় অভিনয় করে ব্যাপক দর্শকপ্রিয়তাও পেয়েছেন। তার মধ্যে সবচেয়ে এগিয়ে আছেন জয়া আহসান।

এরপরের অবস্থানে রয়েছেন বাংলাদেশের আরেক আলোচিত মডেল-অভিনেত্রী নুসরাত ফারিয়া। বলা চলে জয়া এবং নুসরাত ফারিয়া দু’জনই বাংলাদেশের সিনেমার চেয়ে কলকাতার ছবিতে অভিনয় করে বেশি সুনাম অর্জন করেছেন। এমনকি ঢাকাই ছবির চেয়ে টলিউডেই বেশি ব্যস্ত তারা। এই তালিকায় যোগ হয়েছেন বাংলাদেশের মোশাররফ করিম, চঞ্চল চৌধুরী, সোহানা সাবা, বিদ্যা সিনহা মিমের মতো তারকারা। রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা ও আজমেরী হক বাঁধন দুজনই ওয়েব সিরিজের পাশাপাশি কলকাতার সিনেমায় অভিনয় করছেন। অপি করিমও কাজ করেছেন ইন্দ্রনীল রায় চৌধুরীর ছবিতে। তাসনিয়া ফারিণও সাম্প্রতিককালে নজর কাড়ছেন পশ্চিমবঙ্গের সিনেমায়। সেই তালিকায় সর্বশেষ নাম লেখালেন বাংলাদেশের রোমান্টিক নাটকের রাজপুত্র বলে খ্যাতি পাওয়া জিয়াউল ফারুক অপূর্ব।

১০ বছরের বেশি সময় ধরে সেখানকার সিনেমায় অভিনয় করে যাচ্ছেন জয়া আহসান। কলকাতার দর্শকদের ভালোবাসা যেমন পেয়েছেন, প্রশংসা ও পুরস্কারও পেয়েছেন তিনি। জয়ার শুরুটা ছিল আবর্ত সিনেমা দিয়ে। এরপর এক এক করে গত ১০ বছরে কলকাতায় শক্ত অবস্থান গড়ে নিয়েছেন দেশে একাধিকবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই অভিনেত্রী। চলতি বছর তার অভিনীত  অর্ধাঙ্গিনী  কলকাতায় যথেষ্ট সাড়া ফেলেছে। আসছে পূজায় তার অভিনীত দশম অবতার মুক্তি পাচ্ছে। এছাড়া বেশ কয়েকটি সিনেমা কলকাতায় মুক্তির অপেক্ষায় আছে।

নুসরাত ফারিয়াও বেশ কয়েকটি সিনেমা করেছেন কলকাতায়। এ বছর তার অভিনীত  আবার বিবাহ অভিযান  কলকাতায় মুক্তি পেয়েছে। এতে তার বিপরীতে ছিলেন অঙ্কুশ হাজরা। এ পর্যন্ত ওপার বাংলার ৫টি সিনেমায় অভিনয় করেছেন নুসরাত ফারিয়া। কয়েক মাস আগে সেখানে একটি নতুন সিনেমার মহরত করেছেন। নাম চ ড়ান্ত না হওয়া নতুন সিনেমাটির শুটিং এ বছরই শুরু হওয়ার কথা।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত ঢালিউড নায়িকা বিদ্যা সিনহা মিম কলকাতার সিনেমায় নাম লিখিয়েছেন বেশ আগেই। এ বছর সঞ্জয় সমদ্দরের পরিচালনায়  মানুষ  সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। তার বিপরীতে আছেন জিৎ। আরও আগে একই নায়কের সঙ্গে  সুলতা দ্য সেভিয়র  সিনেমায় অভিনয় করেন। ঢাকাই সিনেমার এক সময়ের সাড়া জাগানো নায়িকা অপু বিশ্বাস ওপার বাংলার মাত্র একটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন। তার অভিনীত সিনেমাটি এ বছর মুক্তি পেয়েছে।  আজকের শর্টকাট  সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন সুবীর মন্ডল।

কলকাতায় বাংলাদেশি অভিনয় শিল্পীদের মধ্যে ধারাবাহিকভাবে অভিনয় করে যাচ্ছেন মিথিলাও। সাড়ে ৩ বছরে কলকাতার ৫টি সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। চলতি বছর এই অভিনেত্রীর  মায়া  মুক্তি পেয়েছে। সিনেমাটি দিয়ে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছেন মিথিলা। মাঝখানে বাংলাদেশের ‘মাইশেলফ অ্যালেন স্বপন’র সাফল্যের পর কলকাতার সিনেমা ‘মায়া’য় দেখা গেছে অভিনেত্রী মিথিলাকে। এছাড়া সম্প্রতি নতুন সিনেমা ‘অরণ্যর প্রাচীন প্রবাদ’ সিনেমার শুটিং শুরু করেছেন। মিথিলাকে এই সিনেমায় দেখা যাবে নার্সের চরিত্রে।

বাংলাদেশের মোশাররফ করিম নাটক ও ওটিটিতে অভিনয় করে দুই বাংলায় সমান জনপ্রিয়। এ বছর ‘হুব্বা’ নামে নতুন একটি সিনেমা করেছেন তিনি কলকাতায়। সিনেমাটি মুক্তির অপেক্ষায় আছে। ‘হুব্বা’ পরিচালনা করেছেন ব্রাত্য বসু। কলকাতায় গত বছরের অক্টোবরে ‘হুব্বা’ ছবির শুটিং করেছিলেন মোশাররফ করিম। ছবিটি তৈরি হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের কুখ্যাত গ্যাংস্টার হুব্বা শ্যামলের জীবন অবলম্বনে। হুগলি জেলার অপরাধ জগতের একচ্ছত্র ক্ষমতার অধিকারী ছিলেন এই হুব্বা শ্যামল। কিছুদিন আগে ১১ সেকেন্ডের মোশন পোস্টারে দেখা গেছে, গলায় গাঁদা ফুলের মালা জড়িয়ে সবার মাঝখানে দাঁড়িয়ে মোশাররফ। তার দুই পাশে সঙ্গীরা।

বাংলাদেশের টিভি অভিনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি পাল কলকাতার ‘রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত’ সিনেমায় অভিনয় করে দর্শক মহলে প্রশংসা কুড়িয়েছেন। শোনা যাচ্ছে, অচিরেই কলকাতার আরও একটি ছবির কাজে হাত দেবেন এই অভিনেত্রী।

টলিউড দিয়েই চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়েছে ঢাকার এই সময়ের আলোচিত ও ব্যস্ত মডেল-অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণের। চলতি বছরের ফেব্রæয়ারিতে মুক্তি পায় এই তারকার ‘আরও এক পৃথিবী’ নামের সেই সিনেমা। অতনু ঘোষ নির্মিত ছবিটি প্রশংসা পেয়েছিল বেশ। বছর না ঘুরতেই ফারিণের ঝুলিতে ফের কলকাতার প্রজেক্ট। এবারের ছবি ‘পাত্রী চাই’। পরিচালনায় বিপ্লব গোস্বামী। জানা গেছে, এই ছবিতে তাসনিয়া ফারিণের সঙ্গে দেখা যাবে অর্জুন চক্রবর্তীকে। এছাড়াও থাকছেন সব্যসাচী চক্রবর্তী ও মমতাশঙ্কর প্রমুখ। আসন্ন দুর্গাপূজার পরই শুরু হবে ছবিটির শুটিং। ‘পাত্রী চাই’ প্রযোজনা করছে প্রমোদ ফিল্মস। এটি মূলত কলকাতাভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠান।

বাংলাদেশের নাটক ও সিনেমা জগতের শক্তিমান অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী কলকাতায়ও সমানতালে দর্শকপ্রিয়। ইতোমধ্যে তিনি শেষ করেছেন কলকাতার আলোচিত পরিচালক সৃজিত মুখার্জির পরিচালনায় প্রয়াত চলচ্চিত্রকার মৃণাল সেনের বায়োপিক ‘পদাতিক’। ওই সিনেমায় মৃণাল হয়ে পর্দায় আসবেন তিনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মৃণাল সেনের লুকে চঞ্চল চৌধুরীর পোস্ট করা একটি ছবি রাতারাতি ভাইরাল হয়ে যায়। এছাড়া কলকাতার তরুণ নির্মাতা প্রসূন চট্টোপাধ্যায়ের নতুন একটি সিনেমায় অভিনয়ের কথা রয়েছে চঞ্চলের। 


  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন