বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

শিশু আবিদের হত্যাকারী গ্রেফতার


৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৪:২৯ অপরাহ্ণ 

শিশু আবিদের হত্যাকারী গ্রেফতার
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন

শিশু আবিদ সম্পর্কের চাচাতো ভাই।আবিদের বোনকে বিভিন্ন সময় বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে উত্তক্ত করে আসছিলো আবিদের হত্যাকারী মোহাম্মদ তারেক। বিয়েতে রাজি না হওয়ায় শিশু আবিদকে হত্যার পরিকল্পনা করে তারেক।

পরিকল্পনা মোতাবেক ১ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার বিকেল তিনটার দিকে বাড়ির সামনে থেকে চকলেট কিনে দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ঘাতক মোহাম্মদ তারেক তার নিজস্ব অটোরিকশায় যোগে নিয়ে যায় পার্শ্ববর্তী এলাকার একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে। এরপর আবারো অটোরিকশা যোগে বাকখালী নদীর পারে নিয়ে যায়। সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসার পর শিশুটিকে হাত পা বেঁধে ফেলে আটকে রাখে। এরপর তারেক ঘরে ফিরে আসে শিশুটিকে খোঁজাখুজির নাটক করতে থাকে।

পরে আবার ঘটনাস্থলে গিয়ে একটা অপরিচিত মোবাইল নাম্বার থেকে ফোন করে মুক্তিপণ চায়।পরবর্তীতে ঠান্ডা মাথায় শিশুটিকে পিএমখালি ইউনিয়নের জুমছড়ি গ্রামের স্লুইস গেইট এলাকা সংলগ্ন পুকুরের পানিতে চুবিয়ে হত্যা করে।

কক্সবাজার সদরের পিএমখালীতে চাঞ্চল্যকর পাঁচ বছরের শিশু অপহরণের পরবর্তী পানিতে ফেলে হত্যা মামলার প্রধান আসামী তারেক আজিজ'কে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

হত্যাকাণ্ডের মূল হোতা মোহাম্মদ তারেক আটকের পর এই হত্যাকাণ্ডের এমন লোমহর্ষক বর্ণনা দেয় র‍্যাবের কাছে।

এসময় তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় অপহরণের কাজে ব্যবহৃত একটি অটোরিকশা ও মোবাইল ফোন। গতকাল বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে পিএমখালী ইউনিয়নের জুমছড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে র‌্যাব-১৫ এর কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন।

তারেক পেশায় একজন অটোরিকশা চালক ছিলেন বলে জানা গেছে।

  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন