মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪

সর্বাধিক পঠিত


খুদে বিজ্ঞানীর 'স্মার্ট রেলক্রসিং সিস্টেম' আবিষ্কার


খুদে বিজ্ঞানীর 'স্মার্ট রেলক্রসিং সিস্টেম' আবিষ্কার
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার সরকারি আবদুল জব্বার কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী মাহির আসহাব লাবিব আবিষ্কার করলেন স্মার্ট রেল ক্রসিং সিস্টেম। ১৪-৮-২৩ খ্রি: বোরহানউদ্দিন সরকারি আবদুল জব্বার কলেজের এ শিক্ষার্থী ডিসপ্লের মাধ্যমে দেখালেন তার উদ্ভাবনী স্মার্ট রেল ক্রসিং সিস্টেম। খুদে বিজ্ঞানী লাবিব বলেন, এটি এমন একটি ডিভাইস যা মানুষের কোনো স্পর্শ ছাড়াই নিখুঁত ভাবে কাজ করতে পারে।

বাংলাদেশের রেলের দূর্ঘটনাজনিত তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরে লাবিব জানান, বাংলাদেশে ৮২ শতাংশ রেল ক্রসিং অরক্ষিত। আর ১৮ শতাংশ সুরক্ষিত ক্রসিংয়ের বেশির ভাগই চলছে দিনমজুরি ও চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের লোকবল  দিয়ে। রেলের হিসেবে ২০১৪-২০২০ সাল পর্যন্ত রেল দূর্ঘটনায় মারা গেছে ১৭৫ জন। 

এরমধ্যে ১৪৫ জনের মৃত্যু হয়েছে লেভেল ক্রসিংয়ে। রেল দূর্ঘটনায় যত মৃত্যু হয় তার ৮৩ শতাংশই রেল ক্রসিংয়ে দূর্ঘটনাজনিত মৃত্যু। রেল ক্রসিংয়ে দূর্ঘটনায় মৃত্যুর দায় নেই, শাস্তি হয় না। এই প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে মানুষের মুল্যবান জীবন ও সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনার লক্ষ্যে আমি তৈরি করেছি স্মার্ট রেল ক্রসিং সিস্টেম নামক এ ডিভাইস। 

এ ডিভাইসটির মাধ্যমে অরক্ষিত ক্রসিংয়ে ট্রেন এলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে রেলক্রসিং এর যাত্রী ও গাড়ি চলাচলের রাস্তায় গেট বন্ধ হয়ে যাবে এবং একই সাথে সর্তকতামুলক সাইরেন বাজতে থাকবে। এর ফলে মারাত্মক দূর্ঘটনা থেকে বেঁচে যাবে মানুষের মূল্যবান জীবন ও সম্পদ। 

তিনি আরও জানান, এ ডিভাইসটি এক্সটেনসিবল হওয়ার কারণে এটি টেকসই এবং প্রয়োজনে হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার এবং প্রোগ্রামিং এর পরিবর্তন করে এই ডিভাইসটিকে অন্য কাজেও কার্যকর করা যাবে। যা বর্তমান সরকারের ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ বির্নিমানে সহায়তা করতে পারে। উল্লেখ্য,  ইতোপুর্বে খুদে বিজ্ঞানী লাবিব ২ বার ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার পেয়েছে তার উদ্ভাবনীর জন্য।

  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন