শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০২৪

দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রায় কাঁপছে দিনাজপুর, তাপমাত্রা ৯.৫


১৫ জানুয়ারী ২০২৪, ১:৪৯ অপরাহ্ণ 

দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রায় কাঁপছে দিনাজপুর, তাপমাত্রা ৯.৫
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন

দিনাজপুরে এখন বইছে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ। ঘন কুয়াশা মেঘলা আকাশ ও হিমেল বাতাসে কনকনে ঠান্ডায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন এ অঞ্চলের মানুষ। আজ সোমবার (১৫ জানুয়ারি) তৃতীয় দিনের মতো দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে দিনাজপুরে। সকাল ৯টায় জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস; যা ছিল দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

জেলা আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান জানান, সকাল ৯টায় ৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে; যা ছিল দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

হাড়কাঁপানো ঠান্ডায় জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। হিমেল বাতাস ও কুয়াশার কারণে সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষ চরম দুর্ভোগে পড়েছেন।

শীতের তীব্রতা থেকে রক্ষা পেতে নিম্নবৃত্ত-মধ্যবিত্ত ও সব শ্রেণি-পেশার মানুষ ছুটছেন পুরনো কাপড়ের হকার্স মার্কেটে। দিনাজপুর বড়মাঠে হকার্স মার্কেটে সকাল ৮টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত বেচাকেনা চলে। সব মানুষই কিনছেন তাদের সাধ্যমত সোয়েটার,জ্যাকেট,মাফলার, কানটুপি শিশুদের গরম কাপড়। সেখানে ১০০ থেকে ৬০০ টাকা পর্যন্ত গরম কাপড় বেচাকেনা হচ্ছে।

এ দিকে হিমেল বাতাসে প্রবীণ ও শিশুরা ঠান্ডাজনিত সমস্যায় ভুগছেন। শীতজনিত রোগে সর্দি কাশি জ্বর ডায়রিয়া নিউমোনিয়া ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত হয়ে অনেকে সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

এ বিষয়ে দিনাজপুর জেলা প্রশাসক শাকিল আহমেদ জানান, শীতার্ত মানুষের মধ্যে ত্রাণ ও পুনর্বাসন দফতর থেকে প্রাপ্ত কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। তেরো উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তাদের মাধ্যমে এ পর্যন্ত ৫৪ হাজার কম্বল দেয়া হয়েছে। তবে শীতের প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় ত্রাণ পুনর্বাসন মন্ত্রণালয়ের কাছে আরও ২০ কম্বলের চাহিদাপত্র পাঠানো হয়েছে।

  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন