রবিবার, ১৯ মে, ২০২৪

পুত্রবধূকে বাঁচাতে গিয়ে ছেলের হাতে মা খুন


পুত্রবধূকে বাঁচাতে গিয়ে ছেলের হাতে মা খুন
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন

পারিবারিক কলহের জের ধরে নিজের স্ত্রী ডলি খাতুনকে (২৫) এলোপাতাড়ি কোপাচ্ছিলেন ইছামদ্দিন নামে এক ব্যক্তি। আর পুত্রবধূকে বাঁচাতে এগিয়ে যান মা ছাবেদা খাতুন (৬৫)। আর ছেলের দায়ের কোপে ঘটনাস্থলেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি।

পাবনার চাটমোহর উপজেলার হান্ডিয়াল ইউনিয়নের স্থল গ্রামে গতকাল শুক্রবার (০৫ জানুয়ারি) দিনগত রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় গুরুতর আহত বাবা সোবাহান মোল্লা (৭০) ও স্ত্রী ডলি খাতুনকে (২৫) মুমূর্ষু অবস্থায় প্রথমে চাটমোহর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত ইছামুদ্দিন (৩৫)।

নিহত ছাবেদা খাতুনের বড় ছেলে সাজিদুল ইসলাম জানান, গতকাল শুক্রবার (০৫ জানুয়ারি) রাতে ইছামুদ্দিনের সঙ্গে তার স্ত্রীর ঝগড়া চলছিল। ঝগড়ার এক পর্যায়ে ইছামুদ্দিন স্ত্রী ডলি খাতুনের হাতে দা দিয়ে কোপ দেয়। তখন মা ও বাবা তাকে পুত্রবধুকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে তাদেরকেও দা দিয়ে কোপাতে থাকেন ইছামদ্দিন। ধারালো দায়ের কোপে মা ছাবেদা খাতুন ঘটনারস্থলেই মারা যান। গুরুতর আহত হন বাবা সোবাহান মোল্লা ও তার স্ত্রী ডলি খাতুন। তাদেরকে রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চাটমোহর থানার ওসি (তদন্ত) নয়ন কুমার সরকার বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

আজ শনিবার (০৬ জানুয়ারি) সকালে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ইছামুদ্দিন পলাতক, তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ দেয়নি। আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন