শনিবার, ২২ জুন, ২০২৪

সর্বাধিক পঠিত


শেখ হাসিনা রাষ্ট্র পরিচালনায় অত্যন্ত সুদক্ষ একজন মানুষ: ব্যারিস্টার এম শাহজাহান ওমর


২১ ডিসেম্বর ২০২৩, ৯:১৭ অপরাহ্ণ 

শেখ হাসিনা রাষ্ট্র পরিচালনায় অত্যন্ত সুদক্ষ একজন মানুষ: ব্যারিস্টার এম শাহজাহান ওমর

ব্যারিস্টার এম শাহজাহান ওমর | ছবি: আজকের প্রসঙ্গ

  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন

বিএনপির দুর্গ খ্যাত ঝালকাঠি-১ (রাজাপুর-কাঁঠালিয়া) আসনে দলবদল করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হওয়া ব্যারিস্টার এম শাহজাহান ওমর বীর উত্তমের নৌকার পালে বিজয়ের হাওয়া বইতে শুরু করেছে। ব্যক্তি জনপ্রিয়তা ও রাজাপুর-কাঁঠালিয়া উপজেলা আ’লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে বৈরিতার নিরসন হওয়ায় বিজয় প্রায় নিশ্চিত হওয়ার আভাস এখন সাধারন ভোটারদের মুখে মুখে। বৃহস্পতিবার বিকেলে শাহজাহান ওমরের বাসভবনে দলে দলে বিএনপির কর্মী সমর্থকরা দল বদল করে কুশল বিনিময়, আ’লীগে যোগদান এবং আ’লীগ ও তার সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা শুভেচ্ছা বিনিময়ের মধ্য দিয়ে দীর্ঘদিন পর লোক সমাগমে সরগরম হয়ে উঠেছে নেতাকর্মীরা। তবে এসময় বিএনপির উল্লেখ্যযোগ্য পদধারী কাউকেই দেখা যায়নি।

পরে বিকেলে উপজেলা আ’লীগের প্রধান কাযার্লয়ে গেলে আ’লীগ নেতাকর্মীরা ফুল দিয়ে বরন করে নেয় শাহজাহান ওমরকে। এ সময় জেলা আ’লীগের সহ সভাপতি সঞ্জীব কুমার বিশ্বাস, জেলা আ’লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক রাজাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মনিরউজ্জামান, রাজাপুর উপজেলা আ’লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুল আলম সরফরাজ, সাধারণ সম্পাদক জিয়া হায়দার খান লিটন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা আক্তার লাইজুসহ ৬ ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দ, আ’লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ সকল সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে ফাজিল মাদ্রাসা মাঠে নেতাকর্মীদের নিয়ে বৈঠকে বসেন।

সেখানে ঝালকাঠি-১ (রাজাপুর-কাঁঠালিয়া) আসনের নৌকার প্রার্থী হওয়া ব্যারিস্টার এম শাহজাহান ওমর বীর উত্তম বলেন, বিজয়ের মাসে আপনাদের জানাই অন্তিম শুভেচ্ছা, আমি আপনাদের এই দলের সর্বকনিষ্ঠ সদস্য। আমি আশা করবো আমাদের এই সুযোগ্য সরফরাজ সাহেব এর নেতৃত্বে আপনার সকলে আমাকে এবং আমার সাবেক দলের নেতাকর্মী আছে আপনাদের রুমের ছোট্টো একটু জায়গায় স্থান দিবেন। আমরা আমার সাবেক দল আপনাদের সাথে মিলিত হয়ে আপনাদের দলকে আরো সমৃদ্ধি শালি করতে চাই। উন্নত থেকে উন্নত করতে চাই। এর একজামপোল আশেপাশে থানায় জানো ছড়িয়ে পরে। রাজনীতিতে হৃদয়টা আরো বড় করতে হবে সংকৃন্ন মনায় রাজনীতি হয় না। একটা ভুল করতে পারে এডজাস্ট মেন্ট করার মন মানুষিকতা থাকতে হবে। গেঞ্জজাম পার্টি যেখানে আছে টাউট, বাটপার জুয়া খোর, মদখোর, এটা সেটা ওটা আমি নিজেও পছন্দ করি না। আপনাদের আওয়ামী লীগ দলের মধ্যে যদি থাকে তা কঠোর হস্ত দমন করবেন।

তিনি আরও বলেন, শেখ হাসিনা রাষ্ট্র পরিচালনায় অত্যন্ত সুদক্ষ একজন মানুষ। খালেদা জিয়াও সুদক্ষ ছিলেন, ওনার ভেতরে অলসতা ছিলো। ঘুম থেকে উঠতেন ১২ টায়, অফিসে আসতো দেরিতে। কিন্তু শেখ হাসিনা ভোর ৬ টায় সকালে উঠে রাত ১২ টা পর্যন্ত কাজ করেন। মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে ধিক্কার জানাই, বিদেশে বদমাইসরা উপদেশ দেয়?। যুদ্ধ করিয়া, মানুষ মারিয়ে দেশ স্বাধীন করিলাম, আর উপদেশ দিয়ে এইটা করেন ওইটা করেন সেইটা করেন, এই শকুনের স্থান এ দেশে মরক নেই। মরকের স্থান বাংলাদেশে নেই। আস্তে আস্তে আমরা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নত থেকে উন্নত হবো, ভবিষ্যতে আমরা শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ গড়বো। যতদিন বাঁচবো আপনাদের মাঝে থাকবো আপনাদের সেবা দেবো।

গত ৩০ নভেম্বর নৌকায় মনোনয়ন পাওয়ার পর রাজাপুর ও কাঁঠালিয়া উপজেলা আ’লীগের নেতাকর্মীদের সাথে যোগাযোগ করার অজুহাতে বৈরিতা দেখা দিলে গত রাতে আ’লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর অন্যতম সদস্য, ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র ঝালকাঠি-২ আসনে বাংলাদেশ আওয়াম লীগ মনোনিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আমির হোসেন আমুর উদ্যোগে বরিশালে তার বাসভবনে দুই উপজেলার দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে বসে শাহজাহান ওমরের সাথে পরিচয় করিয়ে দেন এবং কুশল বিনিময় করে সকলকে ঐক্যবদ্ধ নৌকার পক্ষে কাজ করার নির্দেশনা দেয়া হয়। ঝালকাঠি-১ আসনে ৮ জন প্রার্থী থাকলেও অন্য কোন প্রার্থীকেই আমলে নিচ্ছে না প্রবীন এ রাজনৈতিক নেতা। এ কারনে ফুরফুরা মেজাজে রয়েছেন তিনি। ব্যাক্তি জনপ্রিয়তার কাছে কাউকে পাত্তা দিচ্ছেন না ব্যারিস্টার এম শাহজাহান ওমর বীর উত্তম। অতীতের জনপ্রিয়তার কথা বিবেচনায় খুশি ভোটাররাও। ভোটার শাহ আলম, বদরুদ্দীন তোতা মৃধা, মজিবুর রহমান মৃধা ও ইউনুচ গাজী, গিয়াস হোসেন জানান, স্বাধীনতার পক্ষের দলে এসে শাহজাহান ওমর আবার এলাকার মানুষের সেবা করার সিদ্ধান্তকে ভোটাররা স্বাগত জানিয়েছেন। তারা বলেন, ব্যক্তি হিসেবে শাহজাহান ওমরের জনপ্রিয়তা অনেক বেশি। ১৯৯১ সাল থেকে ধানের শীষের হয়ে চারটি জাতীয় নির্বাচনে অংশ নেন শাহজাহান ওমর। ছিলেন বিএনপি সরকারের আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়কমন্ত্রী ও ভূমি প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন।

  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন