শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৪

অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষিকার গলিত লাশ উদ্ধার


৫ আগস্ট ২০২৩, ১২:১৮ অপরাহ্ণ 

অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষিকার গলিত লাশ উদ্ধার
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন

জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে অবসরপ্রাপ্ত এক স্কুলশিক্ষিকার অধগলিত লাশ শয়ন কক্ষ থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উপজেলার আলমপুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে জোবেদা খাতুন (৬৮) নামের এক শিক্ষিকার গলিত লাশটি উদ্ধার করা হয়।

মৃত অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষিকা জোবেদা খাতুন আলমপুর গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক জহুরুল ইসলামের স্ত্রী। কবে মারা গেছে বলতে পারেনা স্বজনরা। লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য বৃহস্পতিবার সকালে মর্গে পাঠায় পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষিকা জোবেদা খাতুন নিজ বাড়িতে একাই বসবাস করতেন। স্বজনরা গত ৩১ জুলাইয়ের পর থেকে জোবেদা খাতুনের মুঠোফোনে কল করে তাঁকে পাননি। গত বুধবার সন্ধ্যায় জোবেদা বাড়িতে গিয়ে পচা দুর্গন্ধ অনুভুব করেন তাঁরা। পরে ঘরে গিয়ে চেয়ারে বসা জোবেদার লাশ পড়ে থাকতে দেখে থানায় খবর দেন। পুলিশ রাতে আলমপুর গ্রামে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে পাঠিয়েছে। এটি হত্যা নাকি স্বাভাবিক মৃত্যু তা পুলিশ নিশ্চিত হতে পারেনি।

আলমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুজ্জামান নাদিম বলেন, জোবেদা খাতুন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা ছিলেন। তিনি ৫-৬ বছর আগে অবসরে গেছেন। তাঁর সন্তানরা সবাই শিক্ষক যে যার মত আলাদা বসবাস করে। একারণে তিনি বাড়ীতে একাকী বসবাস করছিলেন। তিনি কবে কখন মারা গেছেন তা কেউ বলতে পারেনা। তবে পুলিশ রাতে এসে নিজ বাড়ি থেকে জোবেদা লাশ উদ্ধার করেছে।

ক্ষেতলাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন বলেন, নিজ বাড়ি থেকে জোবেদা খাতুন নামের এক স্কুল শিক্ষিকার অধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। লাশের শরীরে পঁচন ধরেছে। এতে ধারণা কারা হচ্ছে লাশটি তিন-চার দিন আগের হতে পারে। তার স্বামী-সন্তান সবাই শহরে থাকেন তিনি গ্রামের বাড়িতে একাকী বসবাস করতেন। তবে মৃত্যুর সঠিক কারণ নিশ্চিত হওয়া যায়নি ময়নাতদন্তের রির্পোটে মৃত্যুর কারন জানা যাবে।

  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন
  গুগল নিউজে ফলো করে আজকের প্রসঙ্গ এর সাথে থাকুন