বুধবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২৩

সৌদিতে রহস্যজনক মৃত্যু ছাবিনা খাতুনের


১ অক্টোবর ২০২৩, ১২:৪১ অপরাহ্ণ 

সৌদিতে রহস্যজনক মৃত্যু ছাবিনা খাতুনের

পরিবারের স্বচ্ছলতা ফিরিয়ে আনতে একজন নারী শ্রমিক হিসেবে বিদেশে পাড়ি জমান ছাবিনা। কিন্তু সৌদি আরবে যাওয়ার তিন দিনের মাথায় রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে ঝিনাইদহের গৃহবধূ ছাবিনা খাতুনের (২৪)। সদর উপজেলার সাগান্না ইউনিয়নের বাথপুকুরিয়া গ্রামের রুবেল হোসেনের স্ত্রী ছাবিনা দুই সন্তানের জননী। তার মৃত্যু সম্পর্কে পরিবার জানতে পেরেছে, তিনি নির্যাতনের শিকার হয়ে ভবন থেকে লাফ দেন।

জানা যায়, গত ২২ সেপ্টেম্বর বাথপুকুরিয়া গ্রামের আব্দুল খালেকের পালিত ছেলে দালাল রফিকুলের মাধ্যমে সৌদির উদ্দেশে পাড়ি জামান ছাবিনা খাতুন। ঢাকার মগবাজার এলাকার তিশা ইন্টারন্যাশনালের মালিক ফারুক হোসেন ছাবিনাকে সৌদি যেতে সহায়তা করেন। ২৪ সেপ্টেম্বর সৌদির মালিকের বাসায় গিয়ে ছাবিনা দালালের কথার সঙ্গে কাজের কোনো মিল পাননি। পরিবারের ধারণা, মালিকের কুপ্রস্তাব বা পাশবিক নির্যাতনে রাজি না হওয়ায় ছাবিনাকে ৮তলা ভবন থেকে ফেলে দেওয়া হয়।

স্বামী রুবেল হোসেন বলেন, দালাল রফিকুল আমাদের বলেছিল, মোটা অঙ্কের বেতন, তিন বেলা ঠিকমতো খাবার ও আকামা, সবকিছুই সৌদির মালিক করে দেবেন। কিন্তু খাবার, মালিকের ব্যবহার ও বেতন কোনো কিছুই ঠিকঠাক ছিল না বলে মৃত্যুর আগে ছাবিনা খাতুন তার পরিবারকে জানান। ছাবিনা তার স্বামীর কাছে জানান সৌদিতে মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে দিয়েছে দালাল রফিকুল। ফলে গত ২৬ সেপ্টেম্বর ছাবিনা খাতুন বহুতল ভবন থেকে পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রচার করে রফিকুল।

ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানা জানান, সৌদিতে ছাবিনা নামে কোনো নারীর মৃত্যুর খবর তার কাছে নেই। অভিযোগ পেলে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।